বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন নিয়োগ ২০২২

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ প্রকাশ করা হয়েছে। বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন (বিসিআই) রাষ্ট্রপতি অধ্যাদেশ নং সংশোধনী অনুসারে বাংলাদেশ সার, রাসায়নিক ও ভেষজ শিল্প কর্পোরেশন, বাংলাদেশ কাগজ ও বোর্ড কর্পোরেশন, বাংলাদেশ ট্যানারিজ কর্পোরেশন নামে তিনটি কর্পোরেশন একীভূত করে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। কোম্পানির চেয়ারম্যান এবং পরিচালনা পর্ষদের পরিচালক সরকার কর্তৃক নিযুক্ত। আরও নতুন সরকারি চাকরির খবর দেখুন www.bdjobsedu.com থেকে।

চুড়ান্ত নির্বাচিত প্রার্থীদের ক্ষেত্রে পরবর্তীকালে কোন সময় কোন যােগ্যতার বা কাগজপত্রাদির ঘাটতি ধরা পড়লে, দুনীতি, সনদ জালিয়াতির প্রমাণ পাওয়া গেলে, পুলিশ ডেগ্নিফিকেশনে বিলুপ কোন মন্তব্য পাওয়া গেলে, স্বাস্থ্যগত অযােগ্যতার প্রমাণ পাওয়া গেলে, অসত্য তথ্য প্রদান করলে বা যে কোন গুরুতর ভুলত্রুটি পরিলক্ষিত হলে উক্ত প্রার্থীর নিয়ােগ সরাসরি বাতিল বলে গণ্য হবে। এছাড়া ক্ষেত্রবিশেষে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীকে ফৌজদারি আইনে সোপর্দ করা যাবে। চাকুরিতে নিমোগের পর এরুপ কোন তথ্য প্রকাশ বা প্রমাণ পাওয়া গেলে তাকে চাকুরি হতে বরখাস্তকরণ ছাড়াও তার বিরুদ্ধে যে কোন উপযুক্ত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা যাবে।

প্রধান নির্বাহী হিসেবে চেয়ারম্যানকে কোম্পানি পরিচালনার ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ, সচিব, বিভাগীয় প্রধান এবং কারখানা প্রধানদেরকে কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদের দায়িত্ব অর্পণ করার ক্ষমতা প্রদান করেন। যার ভিত্তিতে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা কোম্পানি ও শিল্প প্রতিষ্ঠানের সামগ্রিক কার্যক্রম পরিচালনা ও তদারকি করেন। বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন নিয়োগ ২০২২ নিচে দেখে আজই আবেদন।

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন নিয়োগ ২০২২

  • সময়সীমাঃ ০৫ আগষ্ট ২০২২
  • পদ সংখ্যাঃ ৬২ টি
  • অনলাইনে আবেদন করুন নিচে থেকে

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন নিয়োগ ২০২২

অনলাইনে আবেদন করুন
আবেদন শুরু হবেঃ ০৫ জুলাই ২০২২ বেলা ১২.০০ থেকে

নতুন চাকরির খবর সমূহ

Bangladesh Chemical Industries Corporation job Circular 2022

কর্পোরেশনের সার্বিক কার্যক্রম পরিচালিত হয় একটি পরিচালনা পর্ষদ দ্বারা যার দ্বারা একজন চেয়ারম্যান এবং সরকার কর্তৃক নিযুক্ত ৫ জন পরিচালক থাকে। প্রতিটি কারখানার জন্য আলাদা এন্টারপ্রাইজ বোর্ড / কোম্পানি বোর্ড রয়েছে। প্রতিটি এন্টারপ্রাইজ বোর্ডে শিল্প মন্ত্রণালয় থেকে বোর্ডের পরিচালক হিসেবে একজন প্রতিনিধি থাকে। সংশ্লিষ্ট কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালকগণ তাদের নিজ নিজ এন্টারপ্রাইজ বোর্ডের নির্দেশনা ও তত্ত্বাবধানে তাদের দৈনন্দিন কার্যক্রম পরিচালনা করেন। উত্তরাধীকার সূত্রে প্রাপ্ত ৮৮টি প্রতিষ্ঠান নিয়ে এটির যাত্রা শুরু হয়। পরবর্তীতে ৬টি নতুন কারখানা সংস্থা কর্তৃক স্থাপিত হয় ও ৩টি কারখানা অন্য সংস্থা হতে বিসিআইসি নিয়ন্ত্রনাধীনে ন্যাস্ত হয়। সরকার বিরাষ্ট্রীয়করন নীতিমালা বাস্তবায়ন এর ফলে মোট ৯৭টি শিল্প প্রতিষ্ঠান এর মধ্যে ৬৫টি প্রতিষ্ঠান হতে পূজি প্রত্যাহার করা হয়।

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন চাকরির খবর ২০২২

৭টি কারখানা প্রাক্তন মালিকের নিকট ও ৭টি প্রতিষ্ঠান মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাষ্টের নিকট হস্তান্তর করা হয়। ৫টি প্রতিষ্ঠান সরকারি সিদ্ধান্তক্রমে বন্ধ করে জনবল পে-অফ করা হয়েছে। বর্তমানে ১৩টি শিল্প প্রতিষ্ঠান বিসিআইসি এর নিয়ন্ত্রনাধীনে পরিচালিত হচ্ছে ও অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে আরো ৯টি শিল্প প্রতিষ্ঠান পরিচালিত হচ্ছে। কাগজ, সার, গ্লাসশীট, হার্ডবোর্ড, সিমেন্ট, স্যানিটারীওয়্যার ও ইন্স্যুলেটর প্রভৃতি পন্য সামগ্রী বিসিআইসি উৎপাদন করে যাচ্ছে। বিসিআইসি এর উৎপাদিত পন্যের মধ্যে ৮০% রাসায়নিক সার। এর মধ্যে ৭০% ইউরিয়া সার ও ১০% অন্যান্য সার। উল্লেখ্য যে, ১৯৯৬-৯৭ সাল থেকে দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষে সারা দেশে কৃষকদের মাঝে সার বিতরনের মত স্পর্শকাতর বিষয়টি বিসিআইসি এর উপর ন্যাস্ত হয়। বিসিআইসি অত্যন্ত আস্তা ও সফলতার সাথে এই গুরু দয়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। আমি মনে করি আপনি বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন নিয়োগ ২০২২ পুরাটা পড়েছে। প্রতিদিনের চাকরির খবর দেখুন আমাদের এই সাইটে। আশা করি বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন নিয়োগ ২০২২ উপর থেকে দেখেছেন।

বিসিআইসি এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

  • জাতীয় অর্থনৈতিক উন্নয়ন কর্মকান্ডের অন্যতম কৃষি খাতে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে দেশ এর আপামর কৃষকদের চাহিদা মোতাবেক ন্যায্যমূল্যে ইউরিয়া সার সরবরাহ ও বিতরণের মাধ্যমে দেশের চাহিদা মিটানো।
  • দেশের মোট ইউরিয়া সারের চাহিদার যে অংশটুকু সংস্থাধীন কারখানাসমূহে উৎপাদন সম্ভব নয়, তা বিদেশ থেকে আমদানী করা।
  • সরকার কর্তৃক নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী বার্ষিক সম্ভাব্য সর্বোচ্চ পরিমান ইউরিয়া, টিএসপি, ডিএপি সার, কাগজ, সিমেন্ট, ইনসুলেটর ও স্যানিটারীওয়ার, গ্লাসশীট ইত্যাদি পন্য উৎপাদন ও বিক্রয়ের মাধ্যমে বাজার মূল্য স্থিতিশীল রাখা।
  • উৎপাদিত পণ্য বিক্রয় ও বন্টনের ক্ষেত্রে সংস্থা/কারখানার লাভের চেয়ে সামাজিক ও জনকল্যাণের বিষয়ে সর্বাধিক গুরুত্ব প্রদান।
  • দেশের শিল্পায়নে যথাযথ ভূমিকা এবং অবদান রাখা।
  • দেশে দক্ষ জনবল গড়ে তোলা।

2 Comments

  1. সেনাবাহিনির সৈনিক পদের নতুন সারকুলার কবে প্রকাশ করা হবে ২০২১ এর টা

    1. আপাতত নাই আসলেই জানবো। ধন্যবাদ সাথেই থাকুন।

Leave a Reply

Back to top button
error: লেখা কপি করা যাবেনা !!