মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর নিয়োগ ২০২২

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ প্রকাশ করা হয়েছে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে বাংলাদেশের উন্নয়নে অবদান রাখতে পারে এমন আলোকিত মানুষ তৈরির জন্য ডিএসএইচই সকলের জন্য শিক্ষাগত সুবিধা সরবরাহের লক্ষ্যে কাজ করছে। মাধ্যমিক ও উচ্চ স্তরের সমস্যাগুলি সমাধানের জন্য, ডিএসএইচই পরিষেবা সরবরাহের গুণমান বৃদ্ধি এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষায় অ্যাক্সেসের সাম্যতা উন্নত করার জন্য মানের উন্নতি এবং নির্দিষ্ট পদক্ষেপের দিকে মনোনিবেশ করছে। আরও নতুন চাকরির খবর দেখুন www.bdjobsedu.com থেকে। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেখে আবেদন করুন।

দৈনিক সংবাদপত্র “বাংলাদেশ প্রতিদিন” দ্বারা প্রকাশিত, এছাড়াও এই চাকরিগুলি বিডি জবস এডু তে সম্পূর্ণ বিবরণ খুঁজে পেতে পারেন। DSHE বাংলাদেশের উন্নয়নে অবদান রাখতে পারে এমন আলোকিত মানুষ তৈরি করতে সকলের জন্য উপলব্ধ শিক্ষাগত সুবিধা প্রদানের জন্য কাজ করছে। মাধ্যমিক এবং উচ্চ স্তরে সমস্যাগুলি সমাধান করার জন্য, DSHE পরিষেবা প্রদানের মান বাড়ানো এবং মাধ্যমিক এবং উচ্চ শিক্ষায় অ্যাক্সেসের সমতা উন্নত করার জন্য গুণমান উন্নতি এবং নির্দিষ্ট কর্মের উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করছে। ভাল খবর হল যে সম্প্রতি DSHE কিছু নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ প্রকাশ করেছে বিভিন্ন পদে। আপনি যদি বাংলাদেশে সরকারি চাকরিতে আগ্রহী হন, নিঃসন্দেহে এটি একটি ভালো। সুতরাং, আসুন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর নিয়োগ ২০২২ দেখি।

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর নিয়োগ ২০২২

  • সময়সীমাঃ ২৮ এপ্রিল ২০২২
  • পদ সংখ্যাঃ বিজ্ঞপ্তি দেখুন

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর নিয়োগ ২০২২

  • সময়সীমাঃ ১৪ এপ্রিল ২০২২
  • পদ সংখ্যাঃ বিজ্ঞপ্তি দেখুন
  • আবেদন ফরমের নমুনা দেখুন নিচে

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর নিয়োগ ২০২২

নতুন চাকরির খবর সমূহ

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর চাকরির সার্কুলার ২০২২

আবেদনপত্রের সাথে নিম্নলিখিত কাগজ-পত্রাদি সংযুক্ত করতে হবে : (১) আবেদনকারীকে ২নং অনুচ্ছেদে প্রদত্ত নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হবে এবং ফরমের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রয়ােজনীয় তথ্য উপাত্ত প্রদান করতে হবে। (২) আবেদন পত্রের সাথে শুধুমাত্র সরকারি প্রথম শ্রেণির গেজেটেড কর্মকর্তা কর্তৃক সত্যায়িত সদ্য তােলা পাসপাের্ট সাইজের ৩ (তিন) কপি ছবি সংযুক্ত করতে হবে।

প্রার্থীর বয়স ২৫/০৩/২০২০ খ্রি. তারিখে ১৮-৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে। বয়স প্রমাণের ক্ষেত্রে স্বীকৃত শিক্ষা বাের্ড কর্তৃক প্রদত্ত এসএসসি/সমমান পরীক্ষার সার্টিফিকেটে লিপিবদ্ধ জন্ম তারিখ প্রকৃত জন্ম তারিখ হিসেবে বিবেচিত হবে। বয়স প্রমাণের ক্ষেত্রে এফিডেভিড গ্রহণযােগ্য নয়। (৪) সরকারি সমাপ্ত উন্নয়ন প্রকল্পের সমপদের জনবলের জন্য অন্য প্রকল্পে নিয়ােগের ক্ষেত্রে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় কর্তৃক জারিকৃত ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৪ তারিখের সম-সওব্য/টিম-০১(২) ১১/২০০৩-১৬৫ নং স্মারক অনুসারে প্রবেশ পদে বয়সসীমা শিথিলযােগ্য।

প্রার্থীকে অবশ্যই বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে। বাংলাদেশের নাগরিক নয় এমন কারাে সঙ্গে বৈবাহিক সূত্রে আবদ্ধ হয়ে থাকলে কিংবা বিবাহের জন্য অঙ্গীকারাবদ্ধ হয়ে থাকলে তিনি আবেদন করার যােগ্য হবেন না। প্রাপ্ত আবেদনসমূহ যাচাই-বাছাই এর পর শুধুমাত্র গ্রহণযােগ্য প্রার্থীদের প্রাথমিক নির্বাচনের লক্ষ্যে লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আহ্বান করা হবে। ত্রুটিপূর্ণ ও অসম্পূর্ণ আবেদনপত্র কোন কারণ দর্শানাে ব্যতীত সরাসরি বাতিল বলে বিবেচিত হবে। (৭) লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ব্যবহারিক/মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর নিয়োগ ২০২২ নতুন তথ্য দেখুন বিজ্ঞপ্তিতে।

আরও কিছু কাগজপত্র

লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ব্যবহারিক/মৌখিক পরীক্ষার সময় আবেদন ফরমে প্রদত্ত তথ্যসমূহ যাচাইয়ের জন্য আবশ্যিকভাবে নিম্নলিখিত কাগজপত্র প্রদর্শন করতে হবে এবং প্রথম শ্রেণির গেজেটেড কর্মকর্তা কর্তৃক সত্যায়িত ১ সেট ফটোকপি জমা দিতে হবে। ক) জাতীয় পরিচয়পত্রসহ এস,এস,সি/সমমান ও এইচ,এস,সি/সমমান পরীক্ষার মার্কশীট ও সনদপত্রের মূলকপি খ) মুক্তিযােদ্ধা, শহীদ মুক্তিযোদ্ধার পুত্র/কন্যা/পােষ্য ও অন্যান্য কোটার ক্ষেত্রে উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ কর্তৃক স্বাক্ষরিত প্রতিস্বাক্ষরিত সার্টিফিকেট এর মূলকপি, গ) বিভাগীয় প্রার্থীদের ক্ষেত্রে যথাযথ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত প্রত্যয়ন পত্র ও অভিজ্ঞতা সনদ।

সরকারের সর্বশেষ জারিকৃত পরিপত্র/নীতিমালা অনুযায়ী কোটা সম্পর্কিত সকল বিধি-বিধান যথাযথভাবে অনুসরণ করা হবে। আবেদনপত্রের সাথে সকল প্রার্থীকে প্রকল্প পরিচালক, সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়সমূহের উন্নয়ন প্রকল্প বরাবর অগ্রণী ব্যাংক এর যে কোনাে শাখা থেকে অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড, জাতীয় প্রেস ক্লাব শাখা, ঢাকা এর অনুকূলে ১০০.০০ টাকার অফেরতযােগ্য ব্যাংক ড্রাফট/পে অর্ডার সংযুক্ত করতে হবে। প্রবেশপত্র প্রেরণের জন্য প্রার্থীর ডাক যােগাযোগের ঠিকানা সম্বলিত ৪.৫”x ১৪ সাইজের খাম (১০/- টাকা মূল্যমানের ডাক টিকেটসহ) আবেদনপত্রের সাথে সংযুক্ত করতে হবে।

নিয়ােগ পরীক্ষার স্থান, তারিখ ও সময় প্রবেশপত্রের মাধ্যমে অবহিত করা হবে। প্রার্থীকে লিখিত, ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষার জন্য কোনাে প্রকার টিএ/ডিএ প্রদান করা হবে না। নিয়ােগ সংক্রান্ত সকল বিষয়ে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে। কোনাে কারণ দর্শানাে ব্যতিরেকে কর্তৃপক্ষ এ বিজ্ঞপ্তি সংশােধন/বাতিল করার অধিকার সংরক্ষণ করেন। অগ্রিহী প্রার্থীদেরকে তাদের আবেদনপত্র আগামী ৩০/১২/২০২১ খ্রি.তারিখের মধ্যে অফিস চলাকালীন প্রকল্প পরিচালক, সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়সমূহের উন্নয়ন প্রকল্প, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, কক্ষ নং ৩০২, ৩য় তলা, ২য় ব্লক, শিক্ষা ভবন, ১৬ আব্দুল গণি রােড, ঢাকা ১০০০ এই ঠিকানায় ডাককুরিয়ার যােগে পৌছাতে হবে। নির্ধারিত তারিখের পর কোনাে আবেদনপত্র গ্রহণ করা হবে না।

Directorate of secondary and higher education job circular 2022 (dshe)

বাংলাদেশ সরকার শিক্ষাকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেয় এবং এ ক্ষেত্রে সরকার তার বিশাল জনসংখ্যাকে মানবসম্পদে রূপান্তরের চেষ্টা করে চলেছে। সকলের জন্য শিক্ষা সরকারের সাংবিধানিক দায়িত্ব। সংবিধান সকলের জন্য শিক্ষায় সমান অধিকারের বিষয়টি নিশ্চিত করে। এটি বিবেচনা করে, সরকার পশ্চাৎপদ জনগোষ্ঠী এবং তার মহিলা নাগরিকদের শিক্ষার উপর জোর দিয়েছে। সরকার মহিলাদের জন্য উপবৃত্তি সহ এইচএসসি (শ্রেণি -12) অবধি বিনামূল্যে শিক্ষা প্রদান করছে। আশা করা যায় যে এটি মহিলা শিক্ষার্থীদের তালিকাভুক্তির হার বাড়াতে, ঝরে পড়ার হার হ্রাস এবং শিক্ষিত জনগণের দ্বারা দেশকে সমৃদ্ধ করতে ভূমিকা রাখবে। বাংলাদেশের বর্তমান শিক্ষাব্যবস্থা বিস্তৃতভাবে তিনটি প্রধান পর্যায়ে বিভক্ত হতে পারে, যেমন। প্রাথমিক, মাধ্যমিক এবং উচ্চ শিক্ষা। প্রাথমিক শিক্ষা প্রাথমিক স্তরের প্রতিষ্ঠানগুলি দিয়ে থাকে। জুনিয়র মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের প্রতিষ্ঠানগুলি মাধ্যমিক শিক্ষা দেয়। উচ্চ শিক্ষা ডিগ্রি পাস (তিন বছর), ডিগ্রি সম্মান (৪ বছর), স্নাতকোত্তর (১ এবং ২ বছর) এবং অন্যান্য সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের সমমানের বিভাগের অন্যান্য উচ্চ স্তরের প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে দেওয়া হয়।

বাংলাদেশের শিক্ষাব্যবস্থা সংযুক্ত বিভাগ এবং অধিদপ্তরের পাশাপাশি বেশ কয়েকটি স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার সমন্বয়ে দুটি মন্ত্রনালয় পরিচালনা ও পরিচালিত হচ্ছে। শিক্ষার দুটি ধারা হ’ল: প্রাথমিক শিক্ষা (প্রথম শ্রেণি -৫) এবং মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা (৬ষ্ঠ গ্রেড এবং উচ্চতর)। একজন সচিবের অধীনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয় (এমওপিএমই) প্রাথমিক শিক্ষা খাত পরিচালনা করে থাকে, অন্য মাধ্যম অর্থাৎ মাধ্যমিক থেকে উচ্চশিক্ষা পর্যন্ত পরিচালিত হয় নিজস্ব সচিবের নেতৃত্বে শিক্ষা মন্ত্রনালয় (এমওই) দ্বারা পরিচালিত হয়। শীর্ষে একজন মন্ত্রী এবং একজন প্রতিমন্ত্রী উভয় মন্ত্রকের সামগ্রিক কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণের জন্য দায়বদ্ধ। শিক্ষার প্রাথমিক প্রাথমিক ধারাটিকে পাঠ্যক্রমের ক্ষেত্রে আরও চার ধরণের শ্রেণিবদ্ধ করা হয়েছে: সাধারণ শিক্ষা, মাদ্রাসা শিক্ষা, প্রযুক্তিগত-বৃত্তিমূলক শিক্ষা এবং পেশাদার শিক্ষা। আশা করি উপর থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ দেখেছেন।

Leave a Reply

Back to top button
error: লেখা কপি করা যাবেনা !!