পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ প্রকাশ করা হয়েছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রণালয় যার ভূমিকা স্থায়ী পরিবেশ এবং সর্বোত্তম বনভূমি নিশ্চিত করা। আগে মন্ত্রণালয়ের নাম ছিল পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়। ১৪ মে ২০১৮ মন্ত্রিসভা পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় নাম পরিবর্তন করা হয়। সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে বনায়নের প্রতি সহায়তা ও উৎসাহ প্রদান। বৃক্ষরোপণ এবং কৃষি বনায়নের বিষয়ে কারিগরি উপদেশ ও সহায়তা প্রদান। বিশ্ব উষ্ণায়ন নিয়ন্ত্রণ, মরুকরণ রোধ, বন, বন্যপ্রাণী, জীববৈচিত্র্য এবং পরিবেশ সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টার জন্য সরকার কর্তৃক অনুস্বাক্ষরিত কনভেনশন, চুক্তি এবং প্রটোকল সমূহের প্রতিশ্রুতি পালনে সহায়তা প্রদান। পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ দেখে আবেদন করুন। আরও নতুন নতুন সরকারি চাকরির খবর দেখুন www.bdjobsedu.com থেকে।

সরকারি বনাঞ্চলের তত্বাবধায়ক হিসাবে বনজসম্পদ ও বন্যপ্রাণী রক্ষা ও ব্যবস্থাপনার সাথে বিভিন্ন আইন ও বিধি বিধানের প্রয়োগ করা। বনের টেকসই ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মৌলিক চাহিদা পূরণে সহায়তা প্রদান। অবক্ষয়িত বন ও পরিত্যাক্ত ভূমি জনগণের অংশগ্রহণে পুনরুদ্ধার করা। জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণের লক্ষ্যে অবশিষ্ট প্রাকৃতিক আবাসস্থল রক্ষণাবেক্ষণ এবং অবক্ষয়িত বনাঞ্চলের পুণরুদ্ধার| অংশীদারিত্ব ভিত্তিক বন ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করণ। সরকারি প্রান্তিক, নতুন জেগে উঠা ভূমি, খাস ভূমি এবং অশ্রেণীভূক্ত বনে দ্রুত বর্ধন ও উচ্চ ফলনশীল প্রজাতির গণমূখী বনায়ন কার্যক্রমের মাধ্যমে আনুভূমিক বৃক্ষাচ্ছাদন সম্প্রসারণ। পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ বিস্তারিত দেখুন নিচে থেকে।

পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় নিয়োগ ২০২২

  • সময়সীমাঃ ১৮ জুলাই ২০২২
  • পদসংখ্যাঃ ২২ টি
পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২
নতুন চাকরির খবর সমূহ

Ministry of Environment and Forests job Circular 2022

প্রতিবেশ ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ, পরিবেশ দূষণ নিয়ন্ত্রণ,জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাত মোকাবেলা, বনজ সম্পদ উন্নয়ন এবং সমুদ্র সম্পদের টেকসই ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে দেশ এর বর্তমান ও ভবিষ্যৎ জনগোষ্ঠীর বাস উপযোগী টেকসই পরিবেশ নিশ্চিতকরণ। বন অধিদপ্তর বনজসম্পদ উন্নয়ন ব্যবস্থাপনার সাথে জীববৈচিত্র্য ব্যবস্থাপনা ও সংরক্ষণ কাজে নিয়োজিত। বন ভিত্তিক কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে দারিদ্র বিমোচন এবং গনমূখী বনায়ন কার্যক্রমের মাধ্যমে দেশের প্রতিবেশ এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নে বনের ভূমিকা বৃদ্ধি করা। আরও নতুন নতুন চাকরির খবর দেখুন এখানে।

লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

  • পরিবেশ ও প্রতিবেশের ভারসাম্য রক্ষা।
  • বন, জীব-বৈচিত্র্য ও বন্যপ্রাণী সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক কনভেনশন, চুক্তি, প্রটোকল এর বিধি বিধান অনুসরণ ও বাস্তবায়ন।
  • কোষ্টাল এবং ওয়েটল্যান্ড জীববৈচিত্র্য ব্যবস্থাপনা ও উন্নয়ন।
  • জলবায়ু স্থিতিস্থাপক বনায়ন, নতুন বন সৃজন, বন সম্পদ আহরণ ও সরবরাহ করা। ভূমি ভিত্তিক উৎপাদন ব্যবস্থার স্থিতিশীলতা রক্ষা।
  • বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও ব্যবস্থাপনা।
  • বন ও সামাজিক বনায়ন কার্যক্রম সম্প্রসারণ।
  • অভয়ারণ্য, ন্যাশনাল পার্ক, বোটানিক্যাল গার্ডেন, ইকো-পার্ক, সাফারী পার্ক প্রভৃতিসহ সকল প্রটেক্টেড এরিয়ার সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা।
  • জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ।
  • ইকো-ট্যুরিজম সম্প্রসারণ।
  • প্রাকৃতিক ও আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন।

Leave a Reply

Back to top button
error: লেখা কপি করা যাবেনা !!