ইউএনডিপি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ | UNDP Job Circular

ইউএনডিপি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ সাম্প্রতিক প্রকাশিত করা হয়েছে। জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচী ইউএনডিপি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের একটি সহায়ক সংস্থা। ১৯৬৫ সাল এর ২২শে নভেম্বর এই সংস্থা প্রতিষ্ঠিত হয়। উন্নয়নশীল দেশ সমূহে সম্পদের পরিকল্পিত ব্যবহার ও সম্পদ আহরণে সাহায্য করা এই সংস্থার উদ্দেশ্য। প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে এই সংস্থা আর্থিক সহায়তা প্রদান করে থাকে এই সংস্থার সদর দপ্তর নিউ ইয়র্কে অবস্থিত। ইউএনডিপি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ এর সকল তথ্য নিচে থেকে দেখুন।

তবে জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচী বাংলাদেশের চাকরির শূন্যপদ আজ আমাদের ওয়েবসাইটে নতুন আপডেট করেছি। এই সাইটে, আপনি সাম্প্রতিক বিডি চাকরির খবর আজকের সার্কুলার আপডেট দেখতে পাবেন নিচে থেকে। তাই এই ইউনাইটেড নেশনস ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের চাকরির সার্কুলার ২০২২ এবং অন্যান্য এনজিও চাকরির সাথে থাকুন। অবশেষে, আমরা বাংলাদেশের বেকার লোকদের জন্য সম্প্রতি ইউএনডিপি এনজিও চাকরির সার্কুলার 2022 প্রকাশ করেছি। ন্যূনতম স্নাতক পাস প্রার্থীরা সাম্প্রতিক UNDP NGO সার্কুলার 2022-এর অনুমতি দেয়। UNPD আন্তর্জাতিক এনজিও চাকরির বিজ্ঞপ্তিতে অংশ গ্রহণ করতে চাকরির বিবরণ অনুসরণ করুন।

ইউএনডিপি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

  • সময়সীমাঃ ২৯ মে ২০২২
  • পদ সংখ্যাঃ বিজ্ঞপ্তি দেখুন
  • অনলাইনে আবেদন করুন নিচে থেকে

ইউএনডিপি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

UNDP Job Circular 2022

নতুন চাকরির খবর সমূহ

ইউএনডিপি চাকরির সার্কুলার ২০২২

ইউএনডিপি ২২শে নভেম্বর ১৯৬৫ সালে তারিখে সম্প্রতি সম্প্রসারিত কারিগরি সহায়তার (ইপটিএ) প্রোগ্রাম ও বিশেষ তহবিলের সাথে একত্রিত হয়েছিল। এই যুক্তিটি ছিল তাদের কার্যকলাপের অনুকরণ। ইপিটিএ ১৯৪২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ফলে উন্নয়নশীল দেশগুলোর অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক দিকগুলোতে সহায়তা করা হয় ও বিশেষ তহবিলে জাতিসংঘ এর প্রযুক্তিগত সহযোগিতার সুযোগ বৃদ্ধি করা হয়। বিশেষ সুবিধার জন্য বিশেষ জাতিসংঘ এর তহবিলের অর্থনৈতিক উন্নয়নের সুনফেড ধারণাটি থেকে উদ্ভূত হয়েছিল। ইউএনডিপি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ আশা করি উপর থেকে দেখেছেন।

যদিও জাতিসংঘের মতো দেশগুলো যেমন জাতিসংঘ এর নিয়ন্ত্রিত তহবিলের সমর্থক ছিল। তবে উন্নত দেশগুলির দ্বারা এই বিরোধিতা, বিশেষ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যারা তৃতীয় বিশ্ব থেকে উদ্বেগজনক এ ধরনের তহবিল আধিপত্য করেছিল ও বিশ্বব্যাংক এর তদনুসারে এটি পছন্দ করেছিল। “বিশেষ তহবিল” গঠন করার জন্য সুনফেডের ধারণাটিকে বাদ দেওয়া হয়েছিল। এই বিশেষ তহবিলটি ধারণার উপর কিছু আপোষ ছিল, এটি বিনিয়োগ এর মূলধন প্রদান করেনি, কিন্তু শুধুমাত্র বেসরকারী বিনিয়োগের জন্য প্রাক শর্ত আনতে সাহায্য করেছে। বিশ্ব ব্যাংকের ছাতাতে ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট এসোসিয়েশনের প্রস্তাব ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ইপিটিএ এবং স্পেশাল ফান্ড একই রকম কাজ পরিচালনা করতে দেখা যায়। ১৯৬২ সালে জাতিসংঘ অর্থনৈতিক ও সামাজিক কাউন্সিল এর মহাসচিবকে জাতিসংঘের প্রযুক্তিগত সহায়তা কর্মসূচিতে মিলিত হওয়ার যোগ্যতা ও অসুবিধাগুলি বিবেচনা করতে বলা হয় এবং ১৯৬৬ সালে ইপিটিএ বিশেষ তহবিলটি ইউএনডিপি গঠনের জন্য একত্রীভূত হয়। নতুন জব সার্কুলার সহ সকল এনজিওর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেখুন এখানে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: লেখা কপি করা যাবেনা !!